চাণক্য নীতি: স্ত্রীর এই কুফল দাম্পত্য জীবনকে ধ্বংস করে, আপনিও জানেন

Prakash Gupta
2 Min Read

চাণক্য নীতি: আচার্য চাণক্যকে একজন মহান পণ্ডিত মনে করা হয়। চাণক্য শুধু রাজনীতি নয়, আমাদের সামাজিক জীবন নিয়েও অনেক কথা বলেছেন। যা আজকের সময়েও সমান প্রাসঙ্গিক। চাণক্য তার নীতিতে নারী-পুরুষের সম্পর্ক নিয়েও অনেক কথা বলেছেন। চাণক্যের মতে, স্ত্রীর মধ্যে দোষ থাকলে স্বামীদের জীবন খারাপ হয়ে যায়।

পাতার ক্ষয় শুধুমাত্র স্বামীর উপর নয়, তার পরিবারের উপরও খারাপ প্রভাব ফেলে। তাদের দাম্পত্য জীবন নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি সংসারে অশান্তি বিরাজ করছে। তাহলে চলুন এই প্রবন্ধের মাধ্যমে জেনে নেওয়া যাক স্ত্রীর এই কুফলগুলো কী কী।

অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করে

চাণক্য বলেন, যে স্ত্রী কটু ভাষা ব্যবহার করেন, তাদের বিবাহিত জীবন নষ্ট হয়ে যায়। মিষ্টভাষী ও সংস্কৃতিমনা নারীরা যেকোনো ঘরকে স্বর্গে পরিণত করে। পক্ষান্তরে নারীর কড়া কথা বলার অভ্যাস থাকলে এমন নারীর ঘরে থাকা সর্বনাশের দিকে নিয়ে যায়। একজন স্বামী সবসময় তার স্ত্রীর জন্য চিন্তিত থাকে। যেসব নারী কটু কথা বলে তারা শুধু স্বামীর জন্যই নয় পরিবারের জন্যও ঠিক। এমন স্ত্রী পরিবারের ভাবমূর্তি নষ্ট করে।

রাগী বউ

রাগ যেকোনো পরিস্থিতিকে খারাপ করে দিতে পারে। যে ব্যক্তি রাগান্বিত হয় তার সবসময় খারাপ সম্পর্ক থাকে। কারণ রাগে সে সামনের লোকের কথা ভাবে না। রাগের সময় এমন কথা বলে যা সামনের মানুষের হৃদয়ে আঘাত করে।

এমতাবস্থায় কারো স্ত্রী রাগান্বিত হলে তার জীবন নষ্ট হয়ে যায়। একজন রাগান্বিত স্ত্রী তার স্বামী এবং তার পরিবারের জন্য সমস্যার কারণ হয়ে ওঠে। রাগান্বিত স্ত্রী তার স্বামীর জীবনকে নরক করে তোলে।

এই জিনিসগুলি সূর্যাস্তের সময় দেখা উচিত, বুঝতে হবে যে এটি মা লক্ষ্মীর কৃপা।
READ
Share This Article