আপনি কি জানেন যে মুকেশ আম্বানির আয় দিয়ে প্রতিদিন 'রাম মন্দির'-এর মতো মন্দির তৈরি করা যায়?

Prakash Gupta
2 Min Read

রাম লল্লার জীবন নিয়ে উত্‍সাহ দেশজুড়ে তুঙ্গে। রাম মন্দির নির্মাণে কোটি কোটি টাকা খরচ হচ্ছে। এখন 22শে জানুয়ারী, লক্ষাধিক মানুষ রাম লল্লার পুণ্যার্থে অযোধ্যায় পৌঁছবে। রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে চলছে তুমুল বিতর্ক।

কিন্তু জানেন কি দেশে এমন ধনী মানুষ আছেন যারা প্রতিদিনের উপার্জন দিয়ে রাম মন্দির তৈরি করতে পারেন। এই ধনী ব্যক্তির নাম মুকেশ আম্বানি। হ্যাঁ, মুকেশ আম্বানি প্রতিদিনের উপার্জন দিয়ে রাম মন্দির তৈরি করতে পারেন। মুকেশ আম্বানির মোট সম্পদ সম্পর্কে জানুন।

আম্বানির সম্পত্তি এবং রাম মন্দির নির্মাণের খরচ

ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার্স ইনডেক্স অনুসারে, মুকেশ আম্বানির সম্পদের পরিমাণ 103 বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। ভারতীয় রুপিতে তার সম্পদের পরিমাণ ৮,৫৫,৭৩০ কোটি টাকা। এভাবে বছরের 365 দিন দিয়ে ভাগ করলে তার দৈনিক সম্পদ হয় 2,345 কোটি টাকা। এখন বোঝা যাক মুকেশ আম্বানি কীভাবে প্রতিদিন রাম মন্দির তৈরি করতে পারেন।

আসলে, অযোধ্যায় রাম মন্দির তৈরির মোট খরচ প্রায় 1800 কোটি টাকা। এটি আমরা যা বলছি তা নয়, এটি 'শ্রী রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট'-এর অনুমান যা রাম মন্দির নির্মাণের তদারকি করছে। এমতাবস্থায়, মুকেশ আম্বানি যদি তার সম্পত্তি থেকে প্রতিদিন একটি নতুন রাম মন্দির তৈরি করেন, তবে বছর শেষে তার প্রায় 2 লাখ কোটি টাকার সম্পত্তি থাকবে।

বড় মানুষদের দাওয়াত পাঠান।

শ্রী রাম মন্দির উদ্বোধনের জন্য প্রায় 7,000 মানুষকে আমন্ত্রণ কার্ড পাঠানো হয়েছে ট্রাস্টের পক্ষ থেকে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। যাদের আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে তাদের মধ্যে শুধু ধর্মীয় গুরু, সাধুই নয়, নেতা, অভিনেতা ও বড় শিল্পপতিরাও রয়েছেন।

ওয়াটার মেট্রোঃ এবার অযোধ্যায় চলবে প্রথম ওয়াটার মেট্রো, জেনে নিন রুট ও ভাড়া
READ
Share This Article