কত টাকা ব্যাংকে রাখতে হবে? সীমা অতিক্রম করলে আয়কর বিজ্ঞপ্তি পাবেন!

Prakash Gupta
2 Min Read

আয়কর: বর্তমানে ব্যবসা অনেক বেশি হচ্ছে এবং ডিজিটাল লেনদেনের সুযোগও ক্রমাগত বাড়ছে। তাই ডিজিটাল যুগে মানুষ কম নগদ লেনদেন করছে। তাই ব্যাংকে টাকা জমা দিতে কোনো সমস্যা নেই।

তবে, আপনি যদি নগদে ব্যবসা করেন এবং আপনার কাছে একবারে প্রচুর পরিমাণে নগদ আসতে চলেছে, তবে আপনাকে অবশ্যই এর সাথে সম্পর্কিত নিয়মগুলি জানতে হবে। আপনি যদি একবারে অ্যাকাউন্টে বেশি নগদ জমা করেন তবে আপনাকে কিছু সমস্যায় পড়তে হতে পারে।

এছাড়াও, আপনি যদি একবারে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে 10 লক্ষ টাকা বা তার বেশি জমা করেন, তাহলে আপনি আয়কর অফিস থেকে একটি বিজ্ঞপ্তি পেতে পারেন। বিভিন্ন ধরনের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে নগদ জমা করার জন্যও আলাদা নিয়ম করা হয়েছে। যাইহোক, এটি আপনার অ্যাকাউন্টের ধরনের উপর নির্ভর করে।

অনেক সময় একজন ব্যক্তি তার সুবিধা অনুযায়ী জিরো ব্যালেন্স অ্যাকাউন্ট খোলেন, কিন্তু তিনি তাতে বেশি পরিমাণ নগদ জমা করতে পারেন না। এই বিষয়ে আপনাকে জানতে হবে। ব্যাঙ্কিং বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে আপনি যদি কোনও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলেন তবে আপনাকে এই নিয়মগুলির সাথে সম্পর্কিত তথ্য আগে থেকেই পেতে হবে। যাতে ভবিষ্যতে কোনো সমস্যা না হয়।

ধরা যাক আপনার অ্যাকাউন্টে 1 লাখ টাকার নগদ জমার সীমা আছে কিন্তু আপনি এই সীমার চেয়ে বেশি নগদ জমা করতে চান। এমন পরিস্থিতিতে, আয়কর অফিস আপনাকে একটি নোটিশ পাঠাতে পারে। এই সমস্যা এড়াতে, আপনি ব্যাঙ্কের সাথে যোগাযোগ করে আপনার অ্যাকাউন্টের সীমা বাড়াতে পারেন। আপনি যদি আপনার অ্যাকাউন্টের সীমা না বাড়িয়ে বেশি টাকা জমা দেন, তবে আপনার অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত হতে পারে।

ইন্ডিগো এয়ারলাইন ভাড়া: ফ্লাইট টিকেট এখন সস্তা হবে... জ্বালানি সারচার্জ কমানো হয়েছে
READ
Share This Article