বিহার থেকে নয়াদিল্লি পর্যন্ত চলবে তেজস রাজধানী এক্সপ্রেস

Prakash Gupta
2 Min Read

দিল্লি থেকে বিহার ভ্রমণকারীদের জন্য সুখবর রয়েছে। আসলে, দেশের বেশিরভাগ মানুষ বিহার থেকে পাড়ি জমায়, এখানকার লোকেরা দিল্লি, মুম্বাই, গুয়াহাটির মতো শহরে উপার্জন করতে যায়।

এই ট্রেনে প্রচুর ভিড়। এ জন্য নতুন ট্রেনও চালাচ্ছে সরকার। নতুন দিল্লি-মুঙ্গের রাজধানী এক্সপ্রেস মুঙ্গের এবং আনন্দ বিহারের মধ্যে চলবে। এটি আজ 16 অক্টোবর মুঙ্গের থেকে শুরু হবে। ট্রেনের সময় সারণী জেনে নিন।

জামালপুর ও কিউল হয়ে রাজধানী এক্সপ্রেস চালানোর স্বপ্নের বয়স ২০ বছর। এটি 20 বছর ধরে চাহিদা রয়েছে। জনগণ এর বিরোধিতা করেছিল। এখন এই 20 বছরের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। আরেকটি বিষয় হল নতুন তেজস রাজধানী এক্সপ্রেসের জন্য আসন সংরক্ষণ এক মাস আগে থেকে বুক করা হয়েছিল।

তেজস রাজধানীতে 11.3টি এসি কোচ থাকবে। এতে 2-2 এসির 3টি কোচ থাকবে। এছাড়া একটি প্রথম এসি বগি থাকবে। নতুন তেজস রাজধানীতে প্যান্ট্রি কার এবং জেনারেটর কার সহ মোট 18 টি কোচ থাকবে। ভিড় থাকলে কোচের সংখ্যা বাড়ানো যেতে পারে।

মুঙ্গেরের মধ্য দিয়ে যাওয়া এই রাজধানী এক্সপ্রেসের ট্রেন নম্বর হল 20501। আগরতলা-তেজস রাজধানী এক্সপ্রেস তার নামানুসারে। এটি প্রতি সোমবার আগরতলা থেকে চলবে এবং মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নয়াদিল্লি যাওয়ার আগে ভাগলপুর ও জামালপুরে থামবে। বুধবার সেখানে ফেরার দিন হবে। বুধবার সন্ধ্যায় নয়াদিল্লির আনন্দ বিহার থেকে ট্রেনটি ছাড়বে। জামালপুর ও ভাগলপুরের মানুষও এই ট্রেনে উত্তর-পূর্বে যেতে পারবে।

নতুন তেজস রাজধানী সময় এই ট্রেনটি আগরতলা থেকে আপ রুটে চলে। আগরতলা-আনন্দ বিহার তেজস রাজধানী এক্সপ্রেস আগরতলা থেকে বিকাল 3:10 টায় ছাড়বে। এর পরে, তেজস রাজধানী মঙ্গলবার সকাল 10.30 টায় নিউ জলপাইগুড়ি পৌঁছবে, কিছু স্টেশনে থামবে।

ট্রেনটি মালদা শহরে পৌঁছবে মঙ্গলবার বিকেল ৩টায়। এর পর সন্ধ্যা ৬:২৫ মিনিটে ভাগলপুর এবং সন্ধ্যা ৭:২৫ মিনিটে জামালপুর যাবে। রাজধানীর জামালপুরে আগরতলা তেজস দুই মিনিটের যাত্রাবিরতি। ট্রেনটি তখন 10:10 টায় পাটনা জংশনে পৌঁছাবে এবং এখান থেকে 10:20 টায় ছাড়বে। বুধবার সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে ট্রেনটি আনন্দ বিহার টার্মিনালে পৌঁছাবে।

চলন্ত ট্রেনে চালক টয়লেট পেলে তাজা কই? এখানে খুঁজে বের করুন
READ
Share This Article